শেষ বলে বাংলাদেশের নাটকীয় জয়

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ০৯:০৬ এএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শেষ বলে বাংলাদেশের নাটকীয় জয়

হারের মুখ থেকে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন রানের নাটকীয় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। শেষ ওভার আর শেষ বলে হারের বেদনায় এবার আর পুড়তে হয়নি টাইগারদের।

শেষ ওভারে আফগানিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৮ রান। হাতে ৪ উইকেট। উইকেটে আক্রমণাত্মক দুই ব্যাটসম্যান। কিন্তু অসাধারণ শেষ ওভারে দলকে রোমাঞ্চকর জয় উপহার দিলেন মুস্তাফিজ। আফগানিস্তানকে ৩ রানে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালের সম্ভাবনা ভালোভাবেই টিকিয়ে রাখল বাংলাদেশ। ছিটকে গেল আফগানরা।

আবুধাবিতে রোববার শুরুতে ধুঁকতে থাকা বাংলাদেশকে ২৪৯ রানের স্কোর এনে দেয় মাহমুদউল্লাহ ও ইমরুল কায়েসের দুর্দান্ত দুটি ইনিংস। রান তাড়ায় এক পর্যায়ে আফগানরা ছিল জয়ের কাছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আটকে যায় ২৪৬ রানে।

শেষ ওভারে স্ট্রাইকে ছিলেন রশিদ খান, যিনি আগের ম্যাচেই বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে উড়িয়েছিলেন বাংলাদেশকে। অন্য প্রান্তে শেনওয়ারি, খেলছিলেন দুর্দান্ত। মুস্তাফিজকে মনে হচ্ছিল গরমে ক্লান্ত, বিধ্বস্ত। কিন্তু শেষ ওভারে বাঁহাতি পেসার অন্য চেহারায়।

প্রথম বলে দুই রান নিয়েছিলেন রশিদ। পরের বলে ফিরতি ক্যাচে আউট। তৃতীয় বলে লেগ বাই। পরের বলে রান নিতে পারলেন না নতুন ব্যাটসম্যান গুলবদিন নাইব। পঞ্চম বলে লেগ বাই থেকে এক রান। শেষ বলে প্রয়োজন ছিল চার। অফ স্টাম্পের বাইরে শট বলটায় পুল করতে গিয়ে ব্যাটই হাতে রাখতে পারলেন না শেনওয়ারি। বল মুশফিকের গ্লাভসে। বাংলাদেশের রুদ্ধশ্বাস জয়।

শেষের মতো ছিল বাংলাদেশের শুরুটাও। একপর্যায়ে দল ছিল খাদের কিনারা। দারুণ শুরু করা লিটন দাস আউট হয়েছিলেন বাজে এক শটে। দুই ভরসা সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম পরপর রান আউট। দল তখন খাদের কিনারায়। ৮৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে দিশাহারা বাংলাদেশ। সেখান থেকে উদ্ধার ইমরুল ও মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে।

আগের রাতে ঢাকা থেকে উড়ে যখন টিম হোটেল আসেন ইমরুল, দুবাইয়ে তখন পেরিয়ে গেছে তখন প্রায় মাঝরাত। সকালে আবার বাস ভ্রমণে আবুধাবি। একাদশে জায়গা পেলেন, তবে ওপেনিংয়ে নয়। যে কারণেই সিদ্ধান্তটি নেয়া হোক, কাজে লাগে দারুণভাবে।

বিপর্যয়ে দাঁড়িয়েই ইমরুল ও মাহমুদউল্লাহ গড়েন ১২৮ রানের জুটি যা ষষ্ঠ উইকেটে বাংলাদেশের রেকর্ড। ভেঙেছেন প্রায় ১৯ বছর আগের রেকর্ড। ১৯৯৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঢাকায় ১২৩ রানের জুটি গড়েছিলেন আল শাহরিয়ার ও খালেদ মাসুদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ৫০ ওভারে ২৪৯/৭ (লিটন ৪১, শান্ত ৬, মিঠুন ১, মুশফিক ৩৩, সাকিব ০, ইমরুল ৭২*, মাহমুদউল্লাহ ৭৪*, মাশরাফি ১০, মিরাজ ৫*; আফতাব ৩/৫৪, মুজিব ১/৩৫, গুলবদিন ০/৫৮, নবি ০/৪৪, রশিদ ১/৪৬, শেনওয়ারি ০/৯)।

আফগানিস্তান: ৫০ ওভারে ২৪৬/৭(শাহজাদ ৫৩, ইহসানউল্লাহ ৮, রহমত ১, হাসমতউল্লাহ ৭১, আসগর ৩৯, নবি ৩৮, শেনওয়ারি ২৩*, রশিদ ৫ গুলবদিন ৫*; মাশরাফি ২/৬২, অপু ০/২৯, মুস্তাফিজ ২/৪৪, মিরাজ ০/৩৬, সাকিব ১/৫৫, মাহমুদউল্লাহ ১/১৭)।

ফল: বাংলাদেশ ৩ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: মাহমুদউল্লাহ

এইচএম