রশিদ ঝড়ে ২৫৬ রানের লক্ষ্য বাংলাদেশের

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রশিদ ঝড়ে ২৫৬ রানের লক্ষ্য বাংলাদেশের

এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে রশিদ খানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশকে ২৫৬ রানের লক্ষ্য দিল আফগানিস্তান। সাত ‍উইকেট পতনের পর রশিদ আর নাইব- দু’জন মিলে ৫৭ বলে গড়েন ৯৫ রানের জুটি। শেষ ৫ ওভারে তারা তোলেন ৫৭ রান।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মূলত অষ্টম উইকেট দৃঢ়তায় এই চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ দাঁড় করায় আফগানিস্তান।

রশিদ খান তো রীতিমত ব্যাটসম্যান হয়ে গেলেন। ১৬০ রানে ৭ উইকেট হারানোর পর ব্যাট করতে নামেন রশিদ খান। জুটি বাদেন গুলবাদিন নাইবের সঙ্গে। এই জুটিই ম্যাচটাকে বাংলাদেশের নাগালের বাইরে নিয়ে গেলো। শেষ ওভারে মাশরাফির কাছ থেকে রিলেন ১৯ রান।

রশিদ খান ৩১ বলে পূরণ করেন হাফ সেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত তিনি অপরাজিত থাকেন ৫৭ রানে। ক্যারিয়ারে এ নিয়ে তিনটি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে রশিদের। সর্বোচ্চ রান অপরাজিত ৬০। গুলবাদিন নাইব করেন ৪২ রান।

বাংলাদেশের পক্ষে ৪ উইকেট নেন সাকিব আল হাসান। আবু হায়দার রনি নেন ২ উইকেট এবং রুবেল ১টি।

আফগানিস্তান দলীয় মাত্র ১০ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারিয়ে বসে। প্রথমে ইহসানউল্লাহ (৮) সাজঘরে ফিরেন। পরে রহমতও (১০) আউট হন। দুজনেই পেসার আবু হায়দার রনির শিকার হন।

এরপর আফগানিস্তান যখন ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিল তখন বোলিংয়ে এসে সাফল্য পান সাকিব আল হাসান। মোহাম্মদ শেহজাদকে আউট করেন রনির ক্যাচ বানিয়ে। কিছুক্ষণ পর আফগানিস্তান অধিনায়ক আসগর আফগানকে (৮) সরাসরি বোল্ড করেন তিনি। বাঁহাতি অলরাউন্ডার ব্যক্তিগত তৃতীয় উইকেট তুলে নেন সামিউল্লাহ শেনওয়ারিকে ফিরিয়ে। তাঁর চতুর্থ শিকার মোহাম্মদ নবি।

সাকিব ও রনির পর পেসার রুবেল হোসেন আঘাত হেনেছেন আফগান ব্যাটিংয়ে। তিনি আফগানিস্তানের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান হাশমতুল্লাহ শহীদীর (৫৮) উইকেট তুলে নেন।

এরপর রশিদ ও নাঈব এসে যা করলেন তা বাংলাদেশের জন্য বড় চাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশেষ করে শেষ ১০ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে ৯৭ রান তুলেছে আফগানিস্তান।

বিএইচ