ফাইনালে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড নাকি ক্রোয়েশিয়া?

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ০৫:২৫ পিএম, ১১ জুলাই ২০১৮
ফাইনালে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড নাকি ক্রোয়েশিয়া?

রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল আজ। রাতে মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া।

ইতোমধ্যেই বেলজিয়ামকে কাদিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে ফ্রান্স। ফাইনালে কে হচ্ছে তাদের প্রতিপক্ষ; তা জানতে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা।

ফাইনালে খেলতে মুখিয়ে আছে দুদলই। দারুণ ফর্মে আছেন দু’দেশের খেলোয়াররা। তবে হ্যারি কেনের দল আজ জিতলে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠবে ইংল্যান্ড আর ইংলিশরা যদি হেরে যায় তাহলে ফুটবল ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠবে ক্রোয়েশিয়া।

যদিও জ্যোতিষী উট ‘শাহিন’ বলছে, আজকের ম্যাচে জিতবে ক্রোয়েশিয়ার। তারপরও দেখা যাক কে হাসে শেষ হাসি?

বিশ্বকাপে এই প্রথম মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া। কোনো মেজর টুর্নামেন্টে এর আগে মাত্র একবারই মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ২০০৪ সালের ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলে হারায় ইংল্যান্ড। সব মিলিয়ে এনিয়ে অষ্টমবারের মতো মুখোমুখি হচ্ছে দল দুটি। আগের সাত দেখায় ইংল্যান্ড জিতেছে চারবার। ক্রোয়েশিয়ার জয় দুটি ম্যাচে। বর্তমানে ফর্মের তুঙ্গে রয়েছে ইংল্যান্ড। নিজেদের শেষ ৩০টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র দুইটিতে হেরেছে ইংলিশরা।

ফর্মের তুঙ্গে ক্রোয়েশিয়াও। গত বছরের সেপ্টেম্বরে তুরস্কের বিপক্ষে হারের পর থেকে নয়টি ম্যাচে হারের স্বাদ পায়নি রেকিটিচ-মদ্রিচরা। ১৯৯৮ সালের পর এই প্রথমবারের মতো সেমিফাইনালে উঠেছে তারা।

এবার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠতে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে দলটিকে। নকআউট পর্বের দুটি ম্যাচে টাইব্রেকারে জিততে হয়েছে ক্রোয়েশিয়াকে। আর্জেন্টিনার পর মাত্র দ্বিতীয় দল হিসেবে এক বিশ্বকাপে দুটি পেনাল্টি শুটআউট জিতে সেমিফাইনালে উঠেছেন রেকিটিচ-মানজুকিচরা। বিশ্বকাপে ইউরোপীয় প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ক্রোয়েশিয়ার রেকর্ডটা দারুণ। ইউরোপের দলগুলির বিপক্ষে গত ৮ ম্যাচের ৭টিতে অপরাজিত রয়েছে দলটি।

এইচএম