ফুটবলের ২৩তম আসর যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা-মেক্সিকোতে

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ০৬:৩৭ পিএম, ১৩ জুন ২০১৮
ফুটবলের ২৩তম আসর যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা-মেক্সিকোতে

ফুটবল বিশ্বকাপের ২৩তম আসর হবে উত্তর আমেরিকার তিন দেশ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা এবং মেক্সিকোতে। সেই বিশ্বকাপে ৪৮ দল নিয়ে মাঠে গড়াবে খেলা।

বুধবার ফিফার কংগ্রেসে চলছিল ২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ নিয়ে ভোটাভুটি। সেখানেই মরক্কোকে পেছনে ফেলে বিশ্বকাপের স্বাগতিক হওয়ার দৌড়ে জিতে গেল উত্তর আমেরিকার তিন দেশ।

এই প্রথম তিন দেশ মিলে কোনো বিশ্বকাপের আয়োজক হতে যাচ্ছে। মস্কোয় অনুষ্ঠিত ফিফার কংগ্রেসে ভোটাভুটিতে জয় লাভ করার পরপরই আনন্দে ফেটে পড়ে কনকাকাফ অঞ্চলের প্রতিনিধিরা। তিন দেশের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেয়ার মতোই একটি আয়োজন করতে চান তারা।

fifa

ফিফা সদস্য হিসেবে মোট ২১৩টি দেশ থাকলেও বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক দেশ বাছাইয়ের ভোট দিতে পারে শুধুমাত্র ২০০টি দেশ। ২০০ ভোটের ১৩৪টিই পড়ে আমেরিকা, মেক্সিকো আর কানাডার বাক্সে। বাকি ৬৬ ভোটের ৬৫টি পড়ে আফ্রিকান দেশ মরক্কোর বাক্সে। একমাত্র দেশ হিসেবে টোগো কোনো পক্ষেই ভোট দেয়নি। অর্থাৎ ৬৭ শতাংশ ভোট পেয়ে মরক্কোকে হারিয়ে দেয় উত্তর আমেরিকার তিন দেশের যৌথ কনসোর্টিয়াম।

৩ দেশে মোট ২৬টি স্টেডিয়ামে সংস্কার কাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে। যেখানে মেক্সিকো আর কানাডার ৩টি করে ৬টি স্টেডিয়াম এবং বাকি ১৮টি স্টেডিয়াম যুক্তরাষ্ট্রে। ২০২৬ বিশ্বকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস, লস এঞ্জেলেস অথবা নিউইয়র্কে।

যুক্তরাষ্ট্র আর মেক্সিকোর বিশ্বকাপ আয়োজনের অভিজ্ঞতা থাকলেও কানাডা এই প্রথম আয়োজন করবে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ গড়িয়েছিল মেক্সিকোর মাঠে। ১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে আয়োজিত হয়েছিল প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের প্রতিযোগিতা।

বিএইচ