আর্জেন্টিনার হারে মেসিই সবার আগে কষ্ট পায় : আগুয়েরো

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ১২:২৩ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০২০
আর্জেন্টিনার হারে মেসিই সবার আগে কষ্ট পায় : আগুয়েরো

স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে কোন সাফল্য অর্জন বাকি নেই আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসির। বেশ কয়েকবার করে জিতেছেন স্প্যানিশ লা লিগা, স্প্যানিশ কোপা দেল রে, স্প্যানিশ সুপার কাপ, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস ও ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা।

এছাড়া ব্যক্তিগত অর্জনের পাল্লাটাও সমৃদ্ধ করেছেন বার্সেলোনার হয়ে খেলেই। ইতিহাসের সর্বোচ্চ ছয়বার জিতেছেন ব্যালন ডি অর। এর বাইরে সর্বোচ্চ গোলদাতার গোল্ডেন বুট এবং ফিফা বেস্টের পুরস্কারও জিতেছেন কয়েকবার। আর স্পেনের সেরার পুরস্কার ফি বছরই পেয়ে থাকেন মেসি।

তবে সে তুলনায় আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে মেসির কোন বড় সাফল্য নেই। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে রানারআপ, পরে ২০১৫ এবং ২০১৬ সালে কোপা আমেরিকাতেও একই ভাগ্যবরণ। এর মধ্যে ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকা ফাইনালে টাইব্রেকারে পেনাল্টি মিস করেছিলেন মেসি নিজেই।

ফলে ক্লাব ফুটবলের জন্য তিনি যতটা নন্দিত, ঠিক ততটাই নিন্দিত আন্তর্জাতিক ফুটবলের জন্য। যদিও বিশ্বকাপ এবং কোপা আমেরিকার সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন মেসি, তবু দলীয় শিরোপা না থাকায় বারবার শুনতে হয় সমালোচকদের তীর্যক মন্তব্য।

কিন্তু মেসির বাল্যকালের বন্ধু এবং তখন থেকেই সতীর্থ সার্জিও আগুয়েরো মনে করেন, মেসিকে এত সমালোচনা করা উচিৎ নয়। কেননা দলের হতাশাজনক পারফরম্যান্সে সেই সবার আগে কষ্ট পায় এবং বারবার হাল ধরতে এগিয়ে আসে।

সবশেষ ২০১৮ সালের কোপা আমেরিকাতেও মেসির নেতৃত্বে সেমিফাইনাল খেলেছেন আর্জেন্টিনা। আগুয়েরো বলেন, ‘আমি বুঝি না মানুষ কেন জাতীয় দলের মেসির সমালোচনা করে। সেই সবার আগে কষ্ট পায় এবং বারবার এগিয়েও আসে।’

এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত সব দেশের ক্লাব ফুটবল। আগুয়েরোও সবার মতো অপেক্ষায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার। শোনা যাচ্ছে, জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহে শুরু হবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। যেখানে খেলেন আগুয়েরো।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এখন ভাবছি না কী করা উচিৎ। বর্তমান পরিস্থিতিতে সব ক্লাবই সমস্যায় পড়েছে। এটা হয়তো আগামী দুই মাস কিংবা আরও বেশি সময়ের জন্যও বাড়তে পারে। সবমিলিয়ে ঝামেলা বাড়ছেই শুধু।’