গুহায় আটকা বাকি ৫ জনকে উদ্ধারে চূড়ান্ত অভিযান

জাগো বাংলা ডেস্ক প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ১০ জুলাই ২০১৮
গুহায় আটকা বাকি ৫ জনকে উদ্ধারে চূড়ান্ত অভিযান

থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের থ্যাম লুয়াং গুহায় আটকা পড়া কিশোর ফুটবল দলের বাকি চারজন এবং তাদের কোচকে উদ্ধারে তৃতীয় দিনের মতো অভিযান শুরু করেছেন ডুবুরিরা।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকালে ওই অভিযান শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত এটাই হবে ধারণার সবচেয়ে কঠিন ধাপ বলে জানা গেছে। এটাই শেষ আর চূড়ান্ত উদ্ধার অভিযান হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

ওই চার কিশোর এবং তাদের কোচের শারীরিক অবস্থা ভালো আছে বলে জানানো হয়েছে। তারা দীর্ঘ প্রায় ৪ কিলোমিটার সংকীর্ণ ও উঁচু-নিচু জলমগ্ন পথ পাড়ি দিতে প্রস্তুত আছে।

উদ্ধার অভিযানের প্রধান নারংসাক ওসোটানাকোরন গতকাল সোমবার রাতে জানান, এই অভিযানের সার্বিক প্রস্তুতি নিতে অন্তত ২০ ঘণ্টা সময় লাগবে। যদিও আবহাওয়া ও গুহার ভেতর পানির উচ্চতার ওপর নির্ভর করে সময়ের হেরফের হতে পারে। এটি উদ্ধারকারী ডুবুরিদের জন্য এযাবৎ বিশ্বের অন্যতম কঠিন এক অভিযান।

গত ২৩ জুন থেকে গুহাটিতে ১২ কিশোর এবং তাদের কোচ আটকা পড়ে ছিলেন। আটকা পড়ার ১০দিন পর তাদের খোঁজ পাওয়া যায়।

এদিকে, এই উদ্ধার অভিযানে অংশ নিতে গুহাপথে যাত্রা করতে সক্ষম ছোট একটি ডুবোজাহাজ (সাবমেরিন) নিয়ে মার্কিন ব্যবসায়ী এলন মাস্ক আজ মঙ্গলবার থাইল্যান্ডে পৌঁছেছেন বলে জানা গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এলন মাস্কের পোস্ট করা এক বার্তায় এ খবর জানা যায়। রকেটের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ দিয়ে বানানো সাবমেরিনটিকে শিশুদের ফুটবল দল ‘ওয়াইল্ড বোর্স’র নামেই নামকরণ করেছেন এলন মাস্ক।

তবে আটকে থাকা বাকি পাঁচজনকে উদ্ধারে এলন মাস্কের এই সাবমেরিন ব্যবহার করা হবে কি না, সে ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কিছু জানা যায়নি।

বিএইচ