নজরদারির কারণে পাসের হার কম, ভবিষ্যতে বাড়বে : প্রধানমন্ত্রী

জাগো বাংলা রিপোর্ট প্রকাশিত: ০৪:৫৭ পিএম, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭
নজরদারির কারণে পাসের হার কম, ভবিষ্যতে বাড়বে : প্রধানমন্ত্রী

নজরদারি বাড়ানোর কারণে এবার জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় পাসের হার কমেছে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার বেলা ১২টার দিকে গণভবনে ফলাফলের অনুলিপি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী একথা জানান।

তিনি বলেন, এবার নজরদারির কারণে পাসের হার কম হয়েছে। আশা করি ভবিষ্যতে হার বাড়বে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নজরদারি বাড়াতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঠিকমতো পড়ালেখা হয় কিনা এটা দেখতে হবে। এটা দেখা খুব জরুরি। শিক্ষকদের বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ হচ্ছে। এই প্রশিক্ষণের ওপর আরও জোর দিতে হবে বলে আমি মনে করি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। যুগের প্রয়োজন অনুযায়ী কোন বিষয়, কিভাবে পড়তে হবে তা ঠিক করতে হবে।

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কারিকুলাম গ্রহণ এবং পরিবর্তন করা প্রয়োজন। ফেল করা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, মনোযোগ দিয়ে পড়ালেখা করে পাস করার চেষ্টা করতে হবে তোমাদের। গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফলের অনুলিপি হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। দুপুর ২টায় সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিভাবে ফল প্রকাশ করবেন।

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ। জেএসসিতে গড় পাসের হার ৮৩.১০ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৮৪ হাজার ৩৯৭ জন। জেডিসিতে গড় পাসের হার ৮৬. ৮০ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ হাজার ২৩১ জন। জেএসসি ও জেডিসিতে গড় জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৯১ হাজার ৬২৮ শিক্ষার্থী। এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।

আইকে