‌‌‌‍'লেডিস ফার্স্ট' সব সময় বিশ্বাস করি : শাহরুখ

বলিউডে নায়ক-নায়িকাদের সম্মানি নিয়ে বৈষম্য রয়েছে এরকম অভিযোগ দীর্ঘদিনের। নায়কের সম্মানী বেশি, নায়িকাদের কম। এ নিয়ে নারী অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে একধরনের চাপা ক্ষোভ বিরাজ করতে দেখা যায়।

লৈঙ্গিক বিচারে নয়, মেধার ভিত্তিতে নারী ও পুরুষ অভিনেতার সম্মানী নির্ধারিত হোক এটা আজ সবার দাবিতে পরিণত হয়েছে। এ প্রসঙ্গে নারীদের সমান সম্মানীর পক্ষে কথা বলেছেন বলিউড কিং শাহরুখ খান।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শাহরুখ খান জানান, ‘একটা বিষয় আমরা এড়াতে পারি না, সেটা হচ্ছে, এই ইন্ডাস্ট্রি পুরুষনিয়ন্ত্রিত। এর পরিবর্তন হলেই আমার ভালো লাগত। এখানে বৈষম্য থাকা উচিত নয়। নারী ও পুরুষ শিল্পীদের সমান সম্মানী পাওয়া উচিত। এটা যে কেন ভিন্ন, জানি না।’

শাহরুখ আরও বলেন, নারী-পুরুষ কারও নিজেকে অতিমূল্যায়ন করা উচিত নয়। আর এ ক্ষেত্রে শিল্পী বা পরিচালক কেউ যেন বেশি পারিশ্রমিক দাবি না করেন।

সহশিল্পীদের সঙ্গে সব সময়ই সমতার পক্ষে শাহরুখ। ২০১৩ সালে তিনিই প্রথম বলেছিলেন, ছবি শুরু হওয়ার সময় অভিনেতার আগে অভিনেত্রীর নাম দেখাতে হবে। এরপর ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিতে দীপিকার নামটি আগে দেখানো হয়।

সাক্ষাৎকারে শাহরুখ বলেছেন, ‘এটা জটিল কিছু নয়। আমি সব সময়ই বিশ্বাস করি, “লেডিস ফার্স্ট”। আমি যখন কাজ শুরু করি, চমৎকার কয়েকজন নারী আমাকে সহায়তা করেছিলেন। তাদের মধ্যে বলতে হয় মাধুরী দীক্ষিত, জুহি চাওলা ও শ্রীদেবীদের কথা। আমাকে তারকা হতে সাহায্য করেছেন তারা। এত বছর পরও আমাকে তারকা হিসেবেই মূল্যায়ন করেন তারা। এটা আমাকে বিব্রত করে। এ জন্যই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, পর্দায় অভিনেত্রীদের নাম আমার আগে দেখাতে হবে।’

তবে বলিউডের পরিস্থিতি একটু বদলেছে। এখন আর সব ক্ষেত্রে নারী শিল্পীর সম্মানী পুরুষের থেকে কম নয়। ‘পদ্মাবত’ ছবিতে রণবীর সিং এবং শহিদ কাপুরের থেকে বেশি সম্মানী নিয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন। এ ছবির জন্য তিনি নিয়েছেন ১২ কোটি রুপি। আগে এই অভিনেত্রী একটি ছবির জন্য নিয়েছেন ৮ থেকে ১০ কোটি রুপি।

বিএইচ

© Copyright 2018 - All Rights Reserved - by Jagobangla