স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ বেড়ে ২৩ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা

প্রস্তাবিত বাজেটে (২০১৮-১৯ অর্থবছর) স্বাস্থ্যখাতে ২৩ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা বরাদ্দের কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। টাকার অঙ্কে গত বছরের তুলনায় এবার দুই হাজার ৭৩২ কোটি টাকা বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ঘোষিত হয় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট। এবার বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। প্রস্তাবিত বাজেটের শতকরা ৫ ভাগ অর্থ স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

গত অর্থবছরে (২০১৭-১৮) এ খাতে বরাদ্দ ছিল ২০ হাজার ৬৫১ কোটি টাকা।

প্রস্তাববিত বাজেট উপস্থাপনায় অর্থমন্ত্রী বলেন, গ্রামীণ জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য দুই পর্যায়ে ৯ হাজার ৭৯২ জন চিকিৎসক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করেছি। পাশাপশি ৪ হাজার নার্স নিয়োগের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

এছাড়া, ২০২১ সালের মধ্যে প্রসবকালীন মাতৃ ও শিশুমৃত্যুর হার শূন্যের কোঠায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে ৬০০ মিডওয়াইফ নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়েছে। দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের পরিকল্পনা আছে।’

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, স্বাস্থ্যখাতে আমাদের লক্ষ্য হলো সবার জন্য সুলভে মানসম্মত স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ সেবা নিশ্চিত করা। ২৯টি অপারেশনাল প্ল্যানের আওতায় ২০১৭-২২ মেয়াদে সেক্টরওয়াইড কার্যক্রম বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, এ কার্যক্রমের মাধ্যমে মা ও শিশুর জন্য পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্য ও স্বাস্থ্যসেবা, সবার জন্য মানসম্মত সাধারণ ও বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা, সংক্রামক ও অসংক্রামক রোগ ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত নতুন রোগ নিয়ন্ত্রণ, উন্নত ও দক্ষ ওষুধ খাত এবং দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়ন করা হবে। বিভিন্ন হাসপাতালের অবকাঠামো সম্প্রসারণ, শয্যাসংখ্যা বাড়ানো, চিকিৎসা উপকরণের সংস্থান এবং দেশের বিভিন্ন জেলায় বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণের কাজ অব্যাহত আছে।

বিএইচ

© Copyright 2018 - All Rights Reserved - by Jagobangla